Our News

বাকিতে বিক্রিতে সঠিক হিসাব না রাখার কুফল

আপনি যদি কোন ব্যবসায়ের মালিক হন তবে আপনার পরবর্তী গ্রাহক কোথা থেকে আসবে সেই ভাবনা আর চেষ্টার জন্য আপনি আপনার সময়ের একটি বড় অংশ ব্যয় করছেন। ব্যবসায় বৃদ্ধি ও উন্নতির আশায় সেই গ্রাহকদের মধ্যে কারও কারও সাথে আপনি বাকীতে পণ্য দেওয়ার চুক্তিও করেন।  অতঃএব গ্রাহককে  আপনি যে পণ্য এবং পরিষেবাদি সরবরাহ করবেন তার জন্য আপনাকে অর্থ প্রদানের নিদিষ্ট সময় ও পরিমানের সঠিক হিসাব রাখতে হবে। এর সহজ সমাধান হল পাওনার হিসাব সঠিকভাবে রাখা (Account Receivable)

 

Account Receivable বা পাওনার হিসাব কী?   

অ্যাকাউন্ট রিসিভেবল অর্থাৎ বাংলায় যাকে বলা হয় পাওনার হিসাব আদায়, যা একটি ব্যবসায়ের নগদ অর্থ প্রবাহের প্রানকেন্দ্র ।

সহজ কথায় বলতে গেলে, আপনি কোন পণ্য বিক্রয় করেছেন কিন্তু তার মূল্য গ্রাহক এখনও পরিশোধ করে নাই, সুতরাং সেটি কখন, কবে, কিভাবে আদায় করবেন তার একটি পূর্ণাঙ্গ প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করা।

আপনার ব্যবসার লাভজনকতার জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক এবং ব্যবসায়ের আয়ের মুল সূচক সরবরাহ করে।

এখন হয়তো আপনি ভাবতে কিংবা বলতে পারেন এ আর নতুন কি এতো আমরা সবাই জানি

কিন্তু

আপনি কি নিশ্চিত আপনার সকল পাওনা সঠিকভাবে আদায় হচ্ছে

অথবা

এর সুনিশ্চিত হিসাব আপনার কাছে আছে বা অর্থের কোন ক্ষতি হচ্ছে না???
আপনি যদি আপনার পাওনাদার সংখ্যা সঠিকভাবে ট্র্যাক করতে না পারেন তাহলে আপনি নির্দিষ্ট গ্রাহকদের বিল দিতে ভুলে যেতে পারেন বা আপনাকে অর্থ প্রদান করা হয়েছে কিনা তা জানতে পারবেন না।

লেনদেনের ক্ষেত্রে কিছু কিছু গ্রাহকরা বাকীতে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে অর্থ প্রদান শর্তে পণ্য নিয়ে থাকে।

আপনার ছোট ব্যবসা যেমন বাড়ছে, তেমনি আপনার ক্লায়েন সংখ্যাও বৃদ্ধি পেতে পারে, এমতাবস্থায় আপনি তাদের সংখ্যা বা পাওনা অর্থের পরিমান ও তারিখ ভুলে যেতে পারেন।

হয়তো বছর শেষে দেখতে পারেন আয়ের তুলনায় ব্যয়ের পরিমান বেশী কিন্তু কোন কারন খুজে পাচ্ছেন না। কেননা যখন কোন ব্যবসায় মালিক তার গ্রাহককে বাকীতে পণ্য দেয় তখন সেটি ব্যয়ের হিসাবে থাকে পাওনা আদায় না হওয়া পর্যন্ত। এতে একটি প্রতিষ্ঠান উন্নতির চেয়ে অবনতির দিকে ঝুঁকে যায়।

তাই প্রতিটি গ্রাহকের জন্য আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্ট এবং তাদের লেনদেনের হিসাব, তারিখ রেকর্ড রাখা জরুরী। গ্রাহক অ্যাকাউন্টগুলো সুসংগত এবং রুটিন ভিত্তিতে সর্বোত্তম উপায়ে পরিচালিত করা যায় এবং পণ্যটির সাথে একটি ইনভয়েস দেওয়া ও অর্থ প্রদানের তারিখ এবং শর্তাদি উল্লেখ থাকে।

গ্রাহক অ্যাকাউন্টগুলো ডকুমেন্টেশন বুকের সাথে আর্থিক বিবরণীর সাপ্তাহিক, মাসিক বা বাৎসরিক হিসাব এবং ট্যাক্স প্রদানের সময় আপনার ব্যবসাকে সহায়তা করতে পারে।

আমরা প্রায় এ শুনে থাকি আমার বেবসার তাকার সমশা । যদি আরঅ তাকা থাক্ত তাহলে আর ভাল হত। আবার শুনে থাকি অনেক বাকি ছলে গেসে কাস্তমাররা আমাকে ফেরত দিসসেনা । বাকি ব্রিক্রির যদি  সঠিক হিশাব না থাকে এবং কিভাবে আদাই করবেন ভাল পন্থা না থাকে  তাহলে আপানার বেবশআই জতইয় সেল থাকুক অতি শিগ্রেয় আপনার বেবশা বন্দ হয়ে যাবে । বাকিতে অবসসই বিক্রি করবেন তা জেন নিরদিস্ত লিমিত এর ভিতর থাকে ।

এক্তা উদাহরিওন দেওা জাই  , এক মাশে আপান্রা মুল্ধন ২০০০ তাকা হোটেল আপনি ১০ তাকা লাভে প্রতি ১০০ তাকার প্রোডাক্ট  ১০ জনকে বিক্রি করেসেন । এতে আপ্ন্রার লাভ হল ১০*১০=১০০ তাকা। তার মদ্ধে যদি একজনকে বাকিতে বিক্রি করেন থাহলে পরের মাশে আপনার হাতে  লাভের অরথ কুনু আসবেনা  আর যদি ২ জন কে বিক্রি করেন তাহলে আপনার মুল্ধন ১০০ তাকা কমে । এই কারন্নে  আপনি আগের মাশে জা বিক্রি করসেন ঠিক তত্তুকুই বিক্রি করতে পারবেন বা তার কম বিক্রি করতে পারবেন । এভাবে প্রতি মাশে ২ জনকে বাকি বিরকি  করলে ১০ মাশ পরে আপনার মুল্ধন অরকদেক বা তার কম হতে পারে । তাহলে আপনি বলেন আপনার পরিকল্পনা কি ঠিক থাকবে। আর এভাবে চলতে থাকলে ২ বসরের শেশে আপ্ননার বেবশা বন্দ হয়ে যাবে।